আমি আবার কী অপরাধ করলাম: পাপিয়া

নিউজ ডেস্ক::রাজধানীর হোটেলগুলোতে সুন্দরী তরুণী সরবরাহ, প্রভাবশালী ব্যক্তিদের ব্লাকমেইলিং, তদবির বাণিজ্য, অবৈধ অস্ত্র রাখাসহ নানা অভিযোগে গ্রেফতার যুব মহিলা লীগের বহিষ্কৃত নেত্রী শামীমা নূর পাপিয়া এখন ১৫ দিনের পুলিশি রিমান্ডে। তার রিমান্ডের দুদিন শেষ হয়েছে। রিমান্ডে চাঞ্চল্যকর তথ্য দিচ্ছে অবৈধ কর্মকাণ্ডে দাবিয়ে বেড়ানো এই নেত্রী। এসব তথ্যের সূত্র ধরে পাপিয়ার সহযোগী ও তার প্রশয়দাতাদের বিরুদ্ধে কাজ শুরু করেছে আইনশৃংখলাবাহিনী।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ক্ষমতাসীন দলের ভাতৃপ্রতীম সংগঠনের এই নেত্রী গ্রেফতারের পর থেকে বিমর্ষ হলেও তার মধ্যে অপরাধবোধ কাজ করছে না। গ্রেফতারের পর র‌্যাব হেফাজতে এবং পরবর্তীতে আদালতের কাঠগড়ায় তাকে বিমর্ষ দেখা গেছে। এত অপরাধের পরও আদালতের শুনানির ফাঁকে পাপিয়ার প্রশ্ন ছিল, ‘আমি আবার কী অপরাধ করলাম!

সোমবার বেলা ৩টা ২৯ মিনিটে প্রথমে পুরুষ আসামিদের কাঠগড়ায় তোলা হয়। নারী পুলিশ সদস্যরা পাপিয়াসহ দুই নারী আসামিকে কাঠগড়ায় না নিয়ে আইনজীবীদের চেয়ারে বসানোর চেষ্টা করেন। তবে উপস্থিত আইনজীবীদের চাপের মুখে শেষ পর্যন্ত অপরাধ জগতের এই রানিকে কাঠগড়ায় তোলা হয়।

কালো স্কার্ফ ও লেস দেয়া লিলেনের সালোয়ার-কামিজ পরা পাপিয়া কাঠগড়ায় উঠে শুরুতে মাথা নিচু করে মেঝের দিকে তাকিয়ে থাকেন। কিছু সময় পর তাকে মুখ তুলে দুপক্ষের আইনজীবীদের বক্তব্য শুনেন। এ সময় তাকে খুবই বিমর্ষ দেখা যায়। আইনজীবীদের কথা বলার সময় মাঝে কয়েকবার স্বামী সুমনের সঙ্গেও আলাপ করেন পাপিয়া। তবে সুমন এবং তাদের দুই সহযোগীকে এ সময় নির্বিকার দেখা গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *