ফেঞ্চুগঞ্জের সেই সিরাজ মিয়া এবার সুর পাল্টালেন

ফেঞ্চুগঞ্জ প্রতিদিন ডেস্ক:: গত ১২ই জুন ফেঞ্চুগঞ্জ প্রতিদিনে একটি সংবাদ প্রকাশ হয়েছি যে সিলেটের ‘ফেঞ্চুগঞ্জে সরকারী ভূমি চেয়ে বিপাকে ঠেলাচালক (ভিডিও)’ শিরোনামে।

সংবাদে ভিডিও বার্তায় অভিযোগকারী স্থানীয় ঠেলা চালক সিরাজ মিয়ার ভিডিও বার্তা ছিল মাইজগাও ইউনিয়নের স্থানীয় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সাবেক সভাপতি জালাল মিয়ার টাকা দাবি প্রসঙ্গে।

সংবাদটি প্রকাশ হলে আলোচনা সমালোচনা শুরু হলে এবার ভিন্ন ঘটনা প্রকাশ করেন সিরাজ মিয়া।

১৫ই জুন তিনি আরেকটি ভিডিও বার্তায় বলেন, ঐ দিনকার ভিডিওটি করেছিলেন উপজেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাবেদুর রহমান ডেনেস। সিরাজ মিয়া তার ভিডিও বার্তা ও লিখিত বক্তব্যে বলেন, প্রথমে জাবেদুর রহমান ডেনেস উনার কাছে ভূমি পাইয়ে দিতে ১০হাজার টাকা চান। সিরাজ মিয়া টাকা দিতে রাজি না হলে বলে, ঠিক আছে তুমি ভিডিওতে বলো যে জালাল মিয়া তোমার কাছে ২৫ হাজার টাকা দাবি করেছেন। আমরা এ ভিডিও জালাল ভাইকে দেখিয়ে ৪/৫শত টাকা আনব। বাজারে মজা করবো খাওয়া দাওয়া করব। এটাকে মজা করাই ভেবে সেদিন সিরাজ মিয়া ভিডিওতে কথা বলেন।

সিরাজ মিয়া অভিযোগ করে বলেন, আমি বুঝতে পারিনি তারা এই ভিডিও দিয়ে এরকম করবে। আমি অশিক্ষিত মানুষ। আমার মুর্খতার সুযোগ নিয়ে জালাল মিয়াকে বিতর্কিত করবে। ভিডিও বার্তায় সিরাজ মিয়া এবার জাবেদুর রহমান ডেনেসের বিচার দাবি করেন।

পাল্টা অভিযোগের ব্যাপারে জাবেদুর রহমান ডেনেস বলেন, আমি কৌশল করে ভিডিও করিনি। সিরাজ মিয়া নিজেই এসে অভিযোগ জানালে তাই ভিডিও করি।

রাজনৈতিক ফায়দা হাসিলের ষড়যন্ত্রের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমরা এখানে এমপি মাহমুদ উস সামাদের রাজনীতি করি। আলাদা কোন ফায়দা হাসিলের অভিযোগ সত্য নয়।

সিরাজ মিয়ার কাছে ১০ হাজার টাকা দাবির প্রশ্নে তিনি বলেন, এটা সাজানো। আমি টাকা চাইলে সিরাজ মিয়া আগেই বলত। এখন জালাল ভাই সিরাজ মিয়াকে চাপে ফেলে শিখিয়ে পড়িয়ে বক্তব্য নিচ্ছেন।

রাজনৈতিক ফায়দার ব্যাপার না থাকলে আপনাদের মধ্যে এই চাপাচাপি কেন, এ প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমি চাপাচাপি করছি না। তারাই করছে।

তথ্যসুত্রঃ সিলেট ভিউ